মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

দর্শনীয় স্থান

ক্রমিক নাম কিভাবে যাওয়া যায় অবস্থান
হযরত ডেংগু শাহ( র:) এর মাজার শরীফ নাসিরনগর ও মাধবপুর উপজেলা হইতে সিএনজি যোগ।
আয়েত উল্লাহ শাহ এর মাজার ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহর থেকে সিএনজি নিয়ে যাওয়া যায় ।
শ্রী শ্রী কালাচাঁদ বাবাজীর মন্দির ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহর থেকে সিএনজি নিয়ে যাওয়া যায় ।
টিঘর জামাল সাগর দীঘি ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহর থেকে সিএনজি নিয়ে যাওয়া যায় ।
মুক্তিযোদ্ধে নিহত ৭১ জন শহীদের নামে নির্মিত স্মৃতিসৌধ ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহর থেকে সিএনজি নিয়ে যাওয়া যায় ।
ধর্মতীর্থ পটিয়া নদী পাড় (ধরন্তীঘাট) ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহর থেকে সিএনজি নিয়ে যাওয়া যায় ।
কালিকচ্ছ নন্দীপাড়াস্থ দয়াময় আনন্দধাম। ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহর থেকে সিএনজি নিয়ে যাওয়া যায় ।
সলিমগঞ্জ কলেজ নবীনগর হতে সি এন জি বা মটর বাইক এবং বর্ষাকালে নৌকা যোগে ।
আব্দুর রহমান শাহের মাজার ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহর থেকে সিএনজি নিয়ে যাওয়া যায় ।
১০ এমপি টিলা নবীনগর হতে লঞ্চে আসা যাওয়া করা যায় এবং নরসিংদী হতে লঞ্চে আসা যাওয়া করা যায় ।
১১ শ্রীঘর মঠ শ্রীঘর মঠ- উক্ত মঠটি আনুমানিক ১৯৪১-৪২ খ্রীঃ জমিদার রাজ চন্দ্র নাথ নির্মান করেন । এই পরিবারের অলঙ্গ নাহাকে বৃটিশ সরকার রায় বাহাদুর হিসাবে খেতাব দিয়েছিলেন । উক্ত জমিদার পরিবারের উদ্যোগে শ্রীঘর করুনাময়ী দাতব্য চিকিৎসালয়টি স্থাপিত হয় । বর্তমানে এটি শ্রীঘর উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র হিসাবে বিদ্যমান আছে ।
১২ আহাম্মদপুর মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিসৌধ নবীনগর হতে লাউরফতেপুর সি এন জি মাধ্যমে যাওয়া যায়।
১৩ বাড়িখোলা তঞ্জু মৌলভির মাজার ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহর থেকে সিএনজি নিয়ে যাওয়া যায় ।
১৪ গনিশাহ মাজার শরীফ যোগাযোগ ব্যবস্থাঃ ১৯ নং বড়িকান্দি ইউনিয়ন ভবনটি বর্তমানে গনিশাহ (রঃ) মাজার সংলগ্ন থোলস্নাকান্দি গ্রামে অবস্থিত । নবীনগর থেকে সি,এন,জি লঞ্চ এবং ঢাকা ও নরসিংদী থেকে লঞ্চ যোগে আসা যাওয়া করা যায় ।
১৫ খাতাবাড়িয়ার রহমানিয়া দরবার শরীফ ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহর থেকে সিএনজি নিয়ে যাওয়া যায় ।
১৬ কৈবর্তবাড়ী ও মিস্ত্তর বাড়ীর মঠ কৈবর্তবাড়ী ও মিস্ত্তর বাড়ীর মঠ নারই, পূর্ব পাড়া
১৭ রাধিকা-নবীনগর মহাসড়কে তিতাস নদীর ব্রীজ রাধিকা-নবীনগর মহাসড়কের উপর নির্মিত এই ব্রীজটি আশুগঞ্জ-ভৈরব সেতুর পর পরই ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সবচেয়ে বড় সেতু। ব্রীজ দেখতে এবং বিকেল বেলায় হাওয়া খেতে প্রতি দিন অনেক লোকজন এখানে আসে । ব্রীজটির পূর্ব পাড়ে রয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা বার আউয়ালিয়া দরবেশগনের নামে ধন্য সুপরিচিত বার আউলিয়ার বিল । যার ডাক নাম ‘‘বার আইল্লার বিল’’। তার পশ্চিম পাড়ে রয়েছে ব্রাহ্মণহাতা গ্রাম হয়ে সূর সম্রাট ওস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁর জন্মভূমি শীবপুর ।
১৮ হযরত পীর সৈয়দ দয়াল বাবা ফিরোজ শাহ্ (রঃ) এর মাজার যাতায়াতঃ নবীনগর উপজেলা সদর বাসস্ট্যান্ড হতে বাস/সিএনজি যোগে জিনদপুর বাজার । ভাড়ার হার - ১৫-২০ টাকা (জনপ্রতি)
১৯ দয়াময় মন্দির যাতায়াতঃ নবীনগর উপজেলা সদর বাসস্ট্যান্ড হতে বাস/সিএনজি যোগে জিনদপুর বাজার । ভাড়ার হার - ১৫-২০ টাকা (জনপ্রতি)
২০ সতীদাহ মন্দির উপজেলা সদর হতে নৌকা দিয়ে (ভাড়া ১৫/-) মেরকুটা বাজারে নেমে রিক্সা দিয়ে (২০ টাকা ভাড়া) মন্দিরে আসা যায় ।

সর্বমোট তথ্য: ৪৬